হোসেনপুরে কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে কাওন

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলায় রবিশস্য হিসেবে পরিচিত কাওন (চীনা) চাষ এখন বিলুপ্তির পথে। এক সময় গ্রামাঞ্চলের প্রতিটি কৃষক পরিবারে চাষ করা হতো কাওন। বর্তমান জ্ঞান প্রযুক্তির যোগে এ চাষে কৃষকরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। জনশ্রুতি আছে, কাওন চাষের প্রযুক্তি চীন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। এ জন্য একে চীনা বলা হয়ে থাকে। ইহা একটি দানাদার রবি শস্য। সাধারণত অগ্রহায়ন-পৌষ মাসে কাওন বপন করা হলে ভালফলন আশা করা সম্ভব। উপজেলা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, হোসেনপুর উপজেলা কৃষি সমপ্রসারণ বিভাগের অধীনে ১৯টি অপ্রধান শস্যের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এর মধ্যে কাওন (চীনা) চাষের প্রযুক্তি রয়েছে।

কাওন দিয়ে পায়েস, খিড় এবং আটা দিয়ে সুস্বাদু পিঠা তৈরি হয়ে থাকে। স্থানীয় চাষিরা জানান, যেসব এলাকায় সেচ ব্যবস্থার সুবিধা নেই সেখানে গম ও অন্যান্য রবি শস্যের পাশাপাশি কাওনের চাষ করা হচ্ছে। উপজেলার চরপিতলগঞ্জ এলাকায় এক জনৈক চাষী পৈত্রিক চাষাবাদের অংশ হিসেবে কাওন চাষ ধরে রেখেছেন। তার জমিতে ফলন ভাল। নতুন প্রজন্মের কাছে এ ফসল অপরিচিত বলেই মনে হয়।

লিখেছেনঃ উজ্জ্বল কুমার সরকার; হোসেনপুর, কিশোরগঞ্জ

আপনাকে কমেন্টস করতে হলে অবশ্যই লগইন করতে হবে লগইন

বিষয় ভিত্তিক পোষ্টগুলো

কারিগরি সহায়তায়:

বিজ্ঞাপন

প্রবেশ - কপিরাইটঃ ২০০৭ থেকে ২০১৪ | কিশোরগঞ্জ ডট কম