সরারচর শিবনাথ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়

বাজিতপুর উপজেলার সরারচর ইউনিয়নের অবস্থিত “সরারচর শিবনাথ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে”র পূর্ব নাম ছিলো গোবিন্দপুর জুনিয়র হাই স্কুল স্থাপিত ১৯০৮ সালে। অনেকের মতে ১৯১৮ সালে স্কুলের নাম পরিবর্তন হয়ে সরারচর শিবনাথ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়, আবার অনেকের মনে করেন ১৯১৮ সালে এই স্কুল ততকালীন শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পরিচালনার রাষ্ট্রীয় অনুমোদন পায় বলেই এই স্কুলের প্রতিষ্ঠা কাল ১৯১৮ গন্য করা হয়।

বাবু শিবনাথ সাহা অনেক জনহিতকর কাজ করেন।এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য স্ত্রীর নামে বাজিতপুরে কালিতারা পাঠশালা, বনগ্রামে পিতার নামে কার্তিক চন্দ্র সাহা লাইব্রেরী, ধুলদিয়ায় শিবনগর, কামালপুরে পূজামন্ডপ এবং ইংরেজী ১৯১৮ সনে গোবিন্দপুর জুনিয়র বিদ্যালয় স্থাপন করেন যা পরবরতীকালে সরারচর শিবনাথ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় নামে পরিচিতি লাভ করে। তিনি পার্শবর্তী উপজেলা কটিয়াদীর কুড়িখাই গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

লোক মুখে প্রচলিত আছে তিনি এই স্কুলটি প্রথমে কটিয়াদীতেই করতে চেয়েছিলেন পরবর্তীতে এলাকার লোকজন শিবনাথ বাবুর নিজের নামে স্কুল করতে আপত্তি জানালে তিনি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে সরারচরে এসে এই স্কুল স্থাপন করেন !

ততকালীন সময় ১৫-২০ কিঃমি দূর থেকেও প্রতিদিন ছাত্র/ছাত্রীরা সাইকেলে এসে এই স্কুলে ক্লাস করতো, আর যে সকল ছাত্রদের বাড়ি অপেক্ষাকৃত অনেক দূরে তার স্কুল বোর্ডিং এ থেকে পড়াশোনা করতো ! কালের পরিবর্তনে শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন হলেও সরারচর শিবনাথ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ও ব্যবস্থাপনায় ব্যাপক অবনতি হয়েছে । আগের মত জাতীয় পর্যায়ে সাড়া জাগোনো রেজাল্ট যেমন আর এই স্কুল থেকে হয়না তেমন পাশাপাশি সহস্র অনিয়ম আর দূর্নিতি বাসা বেঁধেছে এই স্কুল কে কেন্দ্র করে ।

তেমনি অযোগ্য শিক্ষক ও দুষ্ট রাজনীতির থাবায় – শতবর্ষী এই স্কুল এখন প্রায় মলিন। শুরু থেকে আজ অব্দী এই স্কুলের অনেক ছাত্র জাতীয় ও অন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুনাম কুড়িয়েছে । এখনো লাখো ছাত্র/ ছাত্রীর কাছে প্রিয় বিদ্যাপীঠ ও পরম মমতার এই স্কুল এখনো অনেক প্রিয় !

আপনাকে কমেন্টস করতে হলে অবশ্যই লগইন করতে হবে লগইন

বিষয় ভিত্তিক পোষ্টগুলো

কারিগরি সহায়তায়:

বিজ্ঞাপন

প্রবেশ - কপিরাইটঃ ২০০৭ থেকে ২০১৪ | কিশোরগঞ্জ ডট কম