কমলালেবু তারুণ্যের গোপন রহস্য

বয়সকে বেঁধে রাখার চেষ্টা চলছে সেই প্রাচীন কাল থেকেই। প্রচার মাধ্যমগুলোতেও তারুণ্যকে বেশি দিন টিকিয়ে রাখতে থাকছে নজরকাড়া সব বিজ্ঞাপন। এই সব ঝক্কি-ঝামেলায় মানুষ যখন দিশেহারা ঠিক তখনই বিজ্ঞানীরা দিয়েছেন এক আশাজাগানিয়া তথ্য। দিনে একটি মাত্র কমলাই আপনার তারুণ্যকে ধরে রাখবে বহুদিন। এক পরীক্ষা থেকে জানা যায়, সাইট্রাস খাবার প্রতিদিন নিয়ম করে খেলে পাকস্থলী, ল্যারিংক্স ও মুখের ক্যানসার ৫০ শতাংশ কমে যাবে। সাইট্রাস বলতে মূলত বুজায় ভিটামিন ‘সি’ তে ভরপুর লেবু জাতীয় ফলকে; লেবু,কমলা,জাম্বুরা,বাতাবিলেবু,সাতকরা,মাল্টা।এ জাতীয় ফলগুলোকে বলা হয় হেস্পেরিডিয়াম;যার ছোট ছোট কোয়া গুলো থাকে রসে ভরপুর। আর এই সাইট্রাস খাবারের সবচেয়ে বড় এবং সহজপ্রাপ্য উত্স হল কমলালেবু। বিশেষজ্ঞরা তাই ক্যানসারের বিরুদ্ধে যুদ্ধে কমলালেবুকেও একটি শক্তিশালী হাতিয়ার হিসেবে দেখছেন।
কমলালেবুতেই আছে প্রায় ১৭০ রকমের ভিন্ন ভিন্ন ফাইটোকেমিক্যাল। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী এবং শরীরকে কর্মক্ষম রাখতেও সাহায্য করে। কমলার এই উপাদানগুলো ধমনীতে চর্বি জমতেও বাধা দেয়। এই কমলাতেই আছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি এবং ভিটামিন সি শরীরের রোগ প্রতিরোধক্ষমতাও বাড়িয়ে দেয় বহু গুণ।ভিটামিন সি শরীরে এন্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে ;সর্দি কাশিকে দূরে রাখে। একটি মাত্র কমলায় থাকে প্রায় ৭০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি। এই ভিটামিনটি পানিতে দ্রবীভূত হয় বলে অপ্রোয়জনীয় অংশটুকু শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। তাই একদিনে বেশি না খেয়ে প্রতিদিন নিয়ম করে একটি কমলা খান। নিয়মিত কমলা গ্রহনের অভ্যাস পাল্টে দিবে আপনার স্বাস্থ্যকথা।

আপনাকে কমেন্টস করতে হলে অবশ্যই লগইন করতে হবে লগইন

বিষয় ভিত্তিক পোষ্টগুলো

কারিগরি সহায়তায়:

বিজ্ঞাপন

প্রবেশ - কপিরাইটঃ ২০০৭ থেকে ২০১৪ | কিশোরগঞ্জ ডট কম