আর্কাইভ হতে, বিভাগঃ ‘বৃহত্তর ময়মনসিংহের ইতিহাস’

টংক আন্দোলনের নেত্রী কুমুদিনী হাজং

টংক আন্দোলনের নেত্রী কুমুদিনী হাজং

বৃহত্তর ময়মনসিংহের গারো পাহাড়ের পাদদেশে হাজং আদিবাসী সম্প্রদায়ের বসবাস। সনাতন ধর্মাশ্রয়ী হাজং আদিবাসী সম্প্রদায়ের লোকজন বহু পূর্ব থেকেই তান্ত্রিকতাবাদে বিশ্বাসী। যুগযুগ ধরে কৃষিই হাজংদের একমাত্র পেশা। ১৭৭০ খ্রিস্টাব্দ থেকে হাজং সম্প্রদায়কে সুসং জমিদারদের হাতি ধরার কাজে নিয়োজিত করায় তারা বিদ্রোহী হয়ে ওঠে। ইতিহাসে সে আন্দোলন ‘হাতিখেদা বিদ্রোহ’ নামে খ্যাত। তেমনি নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার গারো […]

পঁচাত্তরে যেভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হয়
– বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, বীরোত্তম

পঁচাত্তরে যেভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হয় <br> – বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, বীরোত্তম

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু জেলা গভর্নর পদ প্রবর্তন করেন। আমার বয়স তখন ২৮। ওই অল্প বয়সেই আমাকে টাঙ্গাইলের জেলা গভর্নর পদে নিয়োগ করা হয়। জেলা গভর্নরদের ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করেন বঙ্গবন্ধু। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ছিল বৃহস্পতিবার। সে ট্রেনিংয়ের শেষ দিন। আমি আমার রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুরের বাসভবন থেকে ওই ট্রেনিংয়ে অংশ নেই। ১৫ আগস্ট সকালেই শুনি সপরিবারে […]

ময়মনসিংহের ইতিহাস

ময়মনসিংহের ইতিহাস

ময়মনসিংহ মধ্য বাংলাদেশে অবস্থিত একটি বিস্তৃত অঞ্চল। ১৯৭০ খ্রিস্টাব্দ অবধি ময়মনসিংহ জেলা ছিল বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা। অন্যদিকে ময়মনসিংহ শহরটি বাংলাদেশের প্রাচীনতম শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম। বাংলা সাহিত্যের অনেক প্রাচীন পুস্তকেও এই শহরের নামোল্লেখ দেখা যায়। ময়মনসিংহের ঐতিহ্যের প্রধান অঙ্গ হচ্ছে মৈমনসিংহ গীতিকা যা প্রাচীন পুঁথি ও লোকগাঁথার সংকলন হিসেবে প্রকাশিত হয়েছে। ময়মনসিংহ বলতে এখানে সমগ্র বৃহত্তর […]

মহকুমা স্থাপনের প্রস্তাব

মহকুমা স্থাপনের প্রস্তাব

বিশাল ময়মনসিংহ জেলার শাসনকার্যের সুবিধার্থে ১৮৪৫ খ্রীষ্টাব্দে তৎকালীন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জেলার পূর্ব ও পশ্চিম দিকে দুটি মহকুমা স্থাপনের লক্ষ্যে শেরপুর, সিরাজগঞ্জ, হাজিপুর পিংনা এই ৪ টি থানা নিয়ে জামালপুর মহকুমা এবং নিকলী, বাজিতপুর, ফতেপুর (বর্তমান কেন্দুয়া) ও মাদারগঞ্জ এই ৪ টি থানা নিয়ে হোসেনপুর বা নিকলী মহকুমা স্থাপনের প্রস্তাব দেন। কিন্তু ১৮৮৫ খ্রীষ্টাব্দে কেবল জামালপুর […]

বিষয় ভিত্তিক পোষ্টগুলো

কারিগরি সহায়তায়:

বিজ্ঞাপন

প্রবেশ - কপিরাইটঃ ২০০৭ থেকে ২০১৪ | কিশোরগঞ্জ ডট কম